আইপিএল ইতিহাসে সবথেকে অদ্ভূত নো বল!



ক্রীড়া প্রতিবেদক

নো বল সচরাচর কখনই ভালো হিসেবে বিবেচিত হয় না ফিল্ডিং করা দলের কাছে। কেননা, তাতে রান-আউট ছাড়া উইকেট পাওয়ার সম্ভাবনা যেমন থাকে না, ঠিক তেমনই ব্যাটসম্যান নির্ভয়ে শট খেলতে পারেন। ব্যাটিং দল অতিরিক্ত এক রান ছাড়াও বাড়তি একটি বল পেয়ে যায়। তাছাড়া অধুনা ফ্রি-হিটের সৌজন্যে পরের বলটিতেও ব্যাটসম্যান আউট হন না এবং খোলা মনে শট খেলেন। তবে নো বল করারও একটা সীমা থাকে। যদি খুঁজে দেখা হয় আইপিএলের ইতিহাসে সবথেকে খারাপ নো বল কোনটি, তবে চিপকে দিল্লি ক্যাপিটালসের বিরুদ্ধে বিজয় শঙ্করের করা নো বলটির কথা অবধারিতভাবে উত্থাপিত হবে।আসলে আইপিএলের ইতিহাসে অন্যতম অদ্ভূত ডেলিভারি করেন বিজয় শঙ্কর। ১৩তম ওভারের পঞ্চম বল করার সময় ঘটে এমন ঘটনা। ডেলিভারির সময় শঙ্করের হাত পিছলে যায় বলটি। ক্যাচ ওঠার মতোই পিচের একপ্রান্ত থেকে অপর প্রান্তে ব্যাটসম্যান ঋষভ পান্তের কাছে মাথার উপর দিয়ে উড়ে এসে পড়ে বল। পন্ত ফুলটস হিসেবে বলটিতে শট নেন। আম্পায়াররাও ধন্ধে পড়ে যান বলটিকে বিমার হিসেবে বিবেচনা করা হবে কিনা সে বিষয়ে। কেননা, বলে একেবারেই গতি ছিলো না, যাতে চোট পাওয়ার ভয় থাকে ব্যাটসম্যানের। শেষমেশ বলটিকে নো বল হিসেবেই ঘোষণা করেন আম্পায়াররা। আইপিএলের তরফেও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিডিওটি পোস্ট করে ক্রিকেটপ্রেমীদের কাছে জানতে চাওয়া হয় যে, এটাই কি আইপিএল ২০২১-এর সবথেকে অস্বাভাবিক ডেলিভারি?


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *