আসামী গ্রেফতার না হওয়ায় আতঙ্কে বাদী


পাংশা প্রতিনিধি

মামলা দায়ের ৭দিন অতিবাহিত হলেও এখন পর্যন্ত পাংশা থানাস্থ্য বাহাদুরপুর তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ ব্যবসায়ী দাউদের উপর সন্ত্রাসী হামলা মামলার এজাহার ভুক্ত কোন আসামী গ্রেফতার না হওয়ায় বাদী পক্ষের লোকজন আতংকের মধ্যে রয়েছে বলে জানা গেছে। পাংশা উপজেলার বাহাদুরপুর ইউনিয়নের সেনগ্রাম কালিতোলা গ্রামের মৃত খবীর উদ্দিন মন্ডলের বড় ছেলে সবেদ আলী মন্ডল জানান তার ছোট ভাই আবু দাউদ দীর্ঘদিন ধরে সেনগ্রাম কালীতোলা বাজারে ব্যবসা করে আসছিলেন। প্রতিদিনের ন্যায় গত ২৪ এপ্রিল (শনিবার) সকাল অনুমান ৯টায় দিকে আবু দাউদ তার দোকান ঘরের তালা খুলছিলেন ওই সময় একই এলাকার হাসাই মাঝির ছেলে কানোনের নেতৃত্বে তার লোকজন দেশীয় ধাঁরালো অস্ত্র নিয়ে জোট বদ্ব হয়ে দাউদের উপর অর্তকিত হামলা চালিয়ে তাকে কুপিয়ে রক্তত্ব জখম করে রাস্তার উপর ফেলে চলে যায়। পরে খবর পেয়ে দাউদের বাড়ীর লোকজন দাউদকে উদ্বার করে প্রথমে পাংশা হাসপাতালে ভর্তী করা হলে শারিরীক অবস্থার অবনতি ওই দিনই উন্নত চিকিৎস্যার জন্য তাকে পাংশা হাসপাতাল হতে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রির্পাট করা হয় কিন্তু সেখানেও শারিরীক অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় জরুরী ভাবে তাকে ঢাকার বে-সরকারী ট্রোমা হাসপাতালে ভর্তী করা হয়। এব্যপারে ব্যবসায়ী আবু দাউদের স্ত্রী জামেলা খাতুন বাদী হয়ে গত ২৬ এপ্রিল কনোনকে প্রধান করে ৫জনকে আসামী করে পাংশায় একটি মামলা দায়ের করেন। যার নং ২০। মামলা দায়েরের ৭দিন অতিবাহিত হলেও এখন পর্যন্ত মামলার এজাহার ভুক্ত কোন আসামী গ্রেফতার না হওয়ায় বাদী পক্ষের লোকজন আতংকের মধ্যে রয়েছে। তবে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও পাংশা থানাস্থ বাহাদুরপুর তদন্ত কেন্দ্রের সাব-এন্সেফেকটর আরবিকুল ইসলামের সাথে কথা হলে তিনি জানান এ মামলার এজাহার ভুক্ত আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *