করোনাকালীন কর্মহীনদের পাশে দাঁড়ানো নৈতিক দায়িত্বঃ ডাঃ ইফতেখার মাহমুদ


নিজস্ব প্রতিনিধি

কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজের প্রতিষ্ঠাকালীন প্রিন্সিপাল প্রফেসর ডাঃ ইফতেখার মাহমুদ বলেছেন-করোনাকালীন সময়ে কর্মহীন অসহায় ও দুস্থ্যদের পাশে যার যার অবস্থান থেকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিতে হবে। এসব মানুষ আমাদের সমাজেরই অংশ তাদের পাশে থাকা আমাদের সকলের নৈতিক দায়িত্ব ও কর্তব্য। গতকাল দুপুরে ভেড়ামারা উপজেলার বাহাদুরপুর বাজার এলাকায় কর্মহীন দুস্থ্য পরিবারের মাঝে বিনামুল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান ও অস্বচ্ছল মানুষদের অর্থ সহায়তাকালে তিনি একথা বলেন। ভেড়ামারা উপজেলার বাহাদুরপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এই অর্থ প্রদান অনুষ্ঠানে সহযোগিতা করেন বাহাদুরপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক সাবেক মেম্বার উজ্জল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিেেসব উপস্থিত ছিলেন ইয়াসিন-মাহমুদা স্মৃতি পরিষদের সভাপতি প্রফেসর ডাঃ ইফতেখার মাহমুদ। অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন বাহাদুরপুর ইউপি যুবলীগের সাধারন সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনির। এসময় উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মন্টু মোল্লা,বীর মুক্তিযোদ্ধা নুর আলম,ডাঃ জালালউদ্দিন,ডাঃ আমিরুল ইসলাম, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহসভাপতি রওশন আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক হাসান সারওয়ার, বজলু সর্দার,ইয়াসিন-মাহমুদা স্মৃতি যুব পরিষদের সম্পাদক মওদুদ আহমেদ রাজিব,সবুজ হোসেন সহ আরো অনেকে। প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রফেসর ডাঃ ইফতেখার মাহমুদ বলেন,আল্লাহর শোকরিয়া আমরা সকলে ভাল আছি। এই করোনায় আমাদের আশে পাশে প্রতি মুহুর্তে মৃত্যুর সংবাদে আমরা আতংকিত এবং বিচলিত। আজকের করোনা থেকে মুক্ত থাকতে হলে প্রথম সচেতনতা অবলম্বন এবং মাস্কের ব্যবহার বাড়াতে হবে। কোন ভাবেই করোনাকে তাচ্ছিল ভাবা যাবে না। বৈশি^ক করোনায় আজ বিশ^ময় মহা সংকটে রয়েছে আমাদের বাংলাদেশেও তার ঢেউ লেগেছে এই ঢেউ কাটিয়ে উঠতে আমাদের সরকারী সকল বিধি নিষেধ মেনে চলতে হবে। সেই সাথে আইনের প্রতি শ্রোদ্ধাশীল হতে হবে। তিনি বলেন, এই করোনায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মানুষের মাঝে চিকিৎসা সেবা প্রদান করে আসছি। আজ আপনাদের এইখানে চিকিৎসা সেবার পাশাপাশি অস্বচ্ছল মানুষদের মাঝে কিছু টাকা প্রদান করে তাদের সুখ দুঃখের সাথী হতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করছি। তিনি আরো বলেন, আমার ইচ্ছে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাবো। আর মানুষের সেবা দিয়ে তাদের ভালবাসা নিয়েই থাকতে চাই। ডাঃ ইফতেখার মাহমুদ বলেন, আমার মরহুম পিতা-মাতার নামে প্রতিষ্ঠিত ইয়াসিন-মাহমুদা স্মৃতি পরিষদের মাধ্যমে এলাকায় কল্যাণকর অনেক কাজ করে যাচ্ছি যার মাধ্যমে এলাকার মানুষেরা নানাভাবে উপকৃত হচ্ছে। তিনি সমাজের বিত্তবানদের অসহায় ও দুস্থ্যদের পাশে দাঁড়ানোর আহবান জানিয়ে বলেন,সমাজ আমাদের নিকট অনেক কিছু আশা করে। আমাদের যার যার সামথ্য অুনযায়ী সমাজের কল্যাণে এগিয়ে আসা উচিত। পরে তিনি ৪০জন দুস্থ্য মানুষের হাতে নগদ অর্থ তুলে দেন। সেখানে তিনি শতাধিক রোগীর ব্যবস্থা পত্র প্রদান করেন। তিনি বিকেলে ভেড়ামারা উপজেলার ষোলদাগ দক্ষিণপাড়ায় হাবিবুর রহমানের উঠান বাড়িতে ২০জন দুস্থ্য মহিলার হাতে নগদ অর্থ তুলে দেন। তিনি সেখানে উপস্থিত মানুষদের করোনায় সতর্কতার সাথে থাকার আহবান জানান। এসময় উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সমাজসেবক হাবিবুর রহমান ও আজমল হক খান। করোানর শুরু থেকেই ইয়াসিন-মাহমুদা স্মৃতি পরিষদেও উদ্যোগে বিনামুল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদানের পাশাপাশি সমাজের কর্মহীন ও অসহায় মানুষদের পাশে সহযোগিতা নিয়ে দাঁড়িয়েছে। তারই ধারাবাহিকতায় এই রমজানে মিরপুর ও ভেড়ামারা উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অসহায়,দুস্থ্য ও কর্মহীন মানুষদের পাশে ঈদ খাদ্র সামগ্রীসহ,নগদ অর্থ ও লুঙ্গি ও শাড়ি কাপড় বিতরন করা হয়েছে।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *