কুষ্টিয়ায় লকডাউনের প্রথমদিনে মাঠে সরব প্রশাসন



নিজস্ব প্রতিনিধি

কুষ্টিয়া জেলায় মধ্যরাত থেকে চলছে লকডাউন। রবিবার (২০ জুন) মধ্যরাত থেকে ২৭ জুন মধ্যরাত পর্যন্ত কঠোর বিধিনিষেধের আওতায় নেয়া হয়েছে জেলাকে। বিধিনিষেধের মধ্যে রয়েছে সবধরনের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, শপিংমল, দোকান, রেস্টুরেন্ট বন্ধ থাকবে। তবে কাঁচা বাজার ও নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের দোকান সকাল ৭টা থেকে দুুপুর ১২টা পর্যন্ত করোনা স্বাস্থ্যবিধি মেনে খোলা রাখা যাবে। বন্ধ থাকবে সপ্তাহিক হাট, কলকারখানা, রিসোর্ট, পর্যটন কেন্দ্র ও পার্ক। লকডাউনের প্রথম দিন গতকাল সোমবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত কুষ্টিয়া শহর ও উপজেলার বিভিন্ন পয়েন্ট ঘুরেঘুরে দেখা যায় মাঠ চষে বেড়াচ্ছে প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি ও করোনা প্রতিরোধ কমিটির সদস্যরা। প্রথমদিনে ইউনিয়ন পর্যায়ে কমটির গুলোর নড়াচড়াও ছিল চোখে পড়ার মত। নিত্যপ্রয়োজন ছাড়াও বাড়ির বাহিরে আগত জনসাধারণের সংখ্যা অনেকাংশ হ্রাস পেয়েছে। কাঁচাবাজার, মুদিদোকান ছাড়াও সকল দোকানপাট বন্ধ পাওয়া গেছে। তবে হঠাৎ লকডাউনের গণবিজ্ঞপ্তি প্রচার –প্রচারণার স্বল্পতায় কিছু চায়ের দোকান ও ছোট ছোট খাবার দোকান খোলা দেখা যায়। তবে ইজিবাইকের চলাচল ছিল চোখে পড়ার মত। উপজেলার কয়া ইউনিয়নে করোনা প্রতিরোধ কমিটির দাঁয়িত্বে আছেন উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলী। সকাল থেকেই কমিটির সদস্যদের নিয়ে মাঠে ছিলেন তিনি। এবিষয়ে তিনি বলেন, সকাল থেকেই ইউনিয়ন প্রতিরোধ কমিটির সদস্যদের নিয়ে মাঠে ছিলাম। লকডাউন মান্য করতে কাজ করেছি। করোনা আক্রান্ত রোগীদের খোঁজখবর নিয়েছি। তিনি আরো বলেন, প্রথমদিনের লকডাউন এখন পর্যন্ত অনেকাংশ সফল হয়েছে। কিছু দোকানদার ও মানুষ অমান্য করেছি। আমরা অমান্যকারীদের বোঝাতে সক্ষম হয়েছি। এদিকে প্রথমদিনে লকডাউন অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে যৌথ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেছেন উপজেলা প্রশাসন। ভ্রাম্যমাণ আদালতে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) তামান্না তাসনীম ৪ টি মামলায় ৩ হাজার ৯০০ টাকা জরিমানা আদায় করেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাজীবুল ইসলাম খান ভ্রাম্যমাণ আদালকে ৭ টি মামলায় ১৯ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন। এসময় ১৩ টি ইজিবাহক জব্দ করা হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাজীবুল ইসলাম খান বলেন, লকডাউনের বিধিনিষেধ মান্য করতে মাঠে আছে প্রশাসন। কঠোর অভিযান পরিচালনা করছে প্রশাসন। সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত দোকানপাট সব বন্ধ পাওয়া যায়। এখন পর্যন্ত লকডাউনে সফল প্রশাসন। তিনি আরো বলেন, বিধিনিষেধ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে জরিমানা আদায় করা হয়েছে। ১৩ টি ইজিবাইক জব্দ করা হয়েছে। এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় উপজেলায় সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে ৮ জন। মারা গেছেন একজন। এনিয়ে উপজেলায় মোট সংক্রমণ শনাক্ত ৮৭৬ জন এবং মারা গেছেন ১৪। এতথ্য নিশ্চিত করেছেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ আকুল উদ্দিন।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *