‘কোয়ার্টার ফাইনালে ইতালি-বেলজিয়ামের দেখা হওয়া দুঃখজনক’



ক্রীড়া প্রতিবেদক

ইউরো কাপের শেষ আটের মহারণ শুরু হচ্ছে শুক্রবার (২ জুলাই)। প্রথম দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে মুখোমুখি হতে যাচ্ছে শিরোপার অন্যতম দুই দাবিদার বেলজিয়াম ও ইতালি। দল দুটির মহারণ কোয়ার্টার ফাইনালেই উত্তাপ ছড়াচ্ছে ফাইনালের। যেনো ফাইনালের আগেই আরেক ফাইনাল। অপ্রতিরোধ্য ইতালি রয়েছে টানা ৩১ ম্যাচে জয়ের রথে। বেলজিয়াম টানা তিন বছর ধরে আছে ফিফা র?্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে। এই শক্তিশালী দুই দল ইউরো ২০২০’র শেষ আটে মোকাবিলা করবে পরস্পরকে। মিউনিখের আলিয়াঞ্জ অ্যারেনায় ম্যাচটি শুরু হবে শুক্রবার বাংলাদেশ সময় রাত ১টায়। সাধারণত রক্ষণ জমাট রেখে পাল্টা-আক্রমণনির্ভর কৌশল বেছে নিয়ে থাকে ইতালি। তবে চলতি ইউরোতে ছক পাল্টে আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলছে তারা। রবার্তো মানচিনির শিষ্যরা নয় গোল করার বিপরীতে হজম করেছে মাত্র একটি। আজ্জুরিদের প্রতিপক্ষ বেলজিয়াম নিজেদের সোনালী প্রজন্ম নিয়ে গত এক দশক ধরে আগ্রাসী ফুটবল খেলে নজর কেড়েছে। এবারের আসরেও তার ব্যতিক্রম ঘটেনি। তারা খেয়েছে মোটে এক গোল, দিয়েছে আটটি। ম্যাচের আগে সংবাদ সম্মেলনে ইতালি ও বেলজিয়ামকে ইউরো ২০২০-এর সেরা দুই দল হিসেবে অভিহিত করেছেন মার্তিনেজ, ‘পরিসংখ্যানের দিক থেকে, আমরা টুর্নামেন্টের সেরা দুই দল। আমরা দুই দলই ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে টানা ১৪টি করে ম্যাচ জিতেছি (বাছাইপর্ব ও চূড়ান্ত পর্ব মিলিয়ে)।’ ছোট ছোট দিকগুলো ম্যাচের ভাগ্য গড়ে দেবে বলেও উল্লেখ করেছেন বেলজিয়াম কোচ, ‘এটা দুঃখজনক যে, কোয়ার্টার-ফাইনালেই আমাদের দেখা হয়ে যাচ্ছে। তবে আমার মতে, এই টুর্নামেন্টের মানই এমন এবং আমাদের প্রস্তুত থাকতে হবে। খুব বেশি গোপনীয়তার কিছু এখানে নেই, দুই দলেরই গড়ন ক্লাব দলের মতো এবং এই ম্যাচের ফল নির্ধারিত হবে খুঁটিনাটি জায়গাগুলোর মাধ্যমে।’ সোনালী প্রজন্ম নিয়েও কাঙ্ক্ষিত সাফল্য পায়নি বেলজিয়ানরা। ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে উঠলেও তারা জিততে পারেনি কোনো শিরোপা। এবারের ইউরোতে সেই অপেক্ষার অবসান হবে কিনা তা সময়ই বলে দেবে। সেমিফাইনালে ওঠার লড়াইয়ের আগে রেড ডেভিলসদের অবশ্য মাথাব্যথার যথেষ্ট কারণ রয়েছে। দলের সেরা দুই কাণ্ডারি কেভিন ডি ব্রুইন ও এডেন হ্যাজার্ড ইতালির বিপক্ষে থাকবেন কিনা তা নিশ্চিত নয়। কারণ, দুই তারকাই ভুগছেন চোটে।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *