গাঁয়ের হাটে প্রশাসন!



কুমারখালী প্রতিনিধি

ভয়াল করোনায় থাবায় দুমড়েছে কুষ্টিয়ার কুমারখালীর জীবন ও জীবিকা। করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ও ভীতি প্রাথমিক পর্যায়ে শুধু শহরাঞ্চলেই ছিল। এরপর শহরতলীর গ্রাম – গঞ্জে। পর্যায়ক্রমে শহরতলী পারি দিয়ে করোনার সংক্রমণ এখন অজোপাড়া গাঁয়ের মাঝে। তাইতো করোনার সংক্রমণরোধে ও বিধিনিষেধ মান্য করাতে উপজেলা প্রশাসন এখন শহর পারি দিয়ে গাঁয়ের হাটে – বাজারে। চালানো হচ্ছে কঠোর অভিযান। চলছে অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে অর্থদন্ড আর ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান গুলো করা হচ্ছে সিলগালা। উপজেলার শহর ও গ্রামগুলো ঘুরেঘুরে দেখা যায়, শহরের তুলনায় গ্রামের মানুষের মাঝে সচেতনা অনেকাংশ কম। গ্রামের মানুষ গুলো মাস্ক ব্যবহারে অনিহা ও স্বাস্থ্যবিধি মানছে না। অপরদিকে শহরের মানুষ মাস্ক, স্বাস্থ্যবিধি ও সরকারি নির্দেশনা মানলেও শতভাগ নয়। উপজেলা প্রশাসন সুত্রে জানা গেছে, গত রোববার মধ্যরাত থেকে উপজেলায় চলছে কঠোর বিধিনিষেধ (লকডাউন)। বুধবার ছিল লকডাউনের তৃতীয়দিন। তৃতীয়দিনে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের গ্রামীণ বাজার ও অজোপাড়া গাঁয়ে অভিযান চালায় প্রশাসন। অভিযানে ২৪ মামলায় ২৪ জনকে ৪৪ হাজার ৭০০ টাকা জরিমানা করা হয়। এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাজীবুল ইসলাম খান বলেন, বুধবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত উপজেলার আলাউদ্দিন নগর, যদুবয়রা, চৌরঙ্গী, পান্টি ও বাঁশগ্রাম এলাকায় অভিযান চালানো হয়। বিকেলে পৌর এলাকায়। এসময় মোবাইল কোর্টে ২৪ জনকে ৪৪ হাজার ৭০০ টাকা জরিমানা দায়ের ও আদায় করা হয়। তিনি আরো বলেন, সংক্রমণ এখন অজোপাড়া গাঁয়ে পৌছেছে। প্রতিরোধে ইউনিয়ন কমিটি গঠন করা হয়েছে।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *