পদ্মা সেতু উদ্বোধনে খালেদাকেও ‘দাওয়াত দিতে চান’ কাদের


admin প্রকাশের সময় : জুন ৫, ২০২২, ৬:৪১ পূর্বাহ্ন /
পদ্মা সেতু উদ্বোধনে খালেদাকেও ‘দাওয়াত দিতে চান’ কাদের

এনএনবি : আইনি জটিলতা না থাকলে পদ্মা সেতুর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে খালেদা জিয়াকেও আমন্ত্রণ জানানো হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।
শনিবার ঢাকার ব্র্যাক সেন্টারে ব্র্যাকের উদ্যোগে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত নারী চালকদের সনদপত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নে একথা জানান তিনি।
ওবায়দুল কাদের বলেন, “বিএনপিসহ রাজনৈতিক সব প্রতিপক্ষকে দাওয়াত দেওয়া হবে। আইনি বাধা না থাকলে এবং নিয়মের মধ্যে পড়লে পদ্মা সেতু উদ্বোধনের দিন বেগম খালেদা জিয়াকেও দাওয়াত দেওয়া হবে।”
দেশের দীর্ঘতম পদ্মা সেতু আগামী ২৫ জুন উদ্বোধন হবে। জাঁকজমকপূর্ণভাবে তা উদ্বোধনের পরিকল্পনা সরকার নিয়েছে।
সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া দুর্নীতির মামলায় দ- নিয়ে কারাগারে গেলেও সরকারের নির্বাহী আদেশে মুক্ত রয়েছেন। গত দুই বছর ধরে বাসায় থাকার মধ্যে তিনি শুধু কয়েকবার হাসপাতালেই কেবল গেছেন।
বিএনপির মিত্র রাজনৈতিক দলগুলোকেও অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হবে বলে জানান ওবায়দুল কাদের।
এতে সাড়া পাওয়ার আশা করছেন কি না-প্রশ্নে তিনি বলেন, “তাদের শরিক দলগুলোকেও দাওয়াত দেওয়া হবে। তারা আসবে কি আসবে না, এটার থেকে দাওয়াত দিচ্ছি, এটা বড় ব্যাপার।”
সরকারের বিরুদ্ধে বিএনপির আন্দোলনের হুমকির প্রতিক্রিয়ায় আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, “বিএনপি আন্দোলনের নামে রাস্তায় নেমে তারা শেখ হাসিনাকে হত্যার হুমকি দিচ্ছে। ‘পঁচাত্তরের হাতিয়ার গর্জে ওঠুক আরেকবার’ বলছে, দেশে বিদেশে ১৫ আগস্টের পুনারাবৃত্তী ঘটনোর অপচেষ্টা করছে। তরুণ নেতাকর্মীদের সামলান, এধরনের স্লোগান দিলে রাজনৈতিক পরিণাম ভালো হবে না। পরিণতি কার খারাপ হবে সেটা বাস্তবে দেখা যাবে। ক্ষমতার পরিবর্তন চাইলে নির্বাচনে অংশ নিতে হবে। অন্ধকার চোরাগলি দিয়ে ক্ষমতায় যেতে চাইলে সেটা সম্ভব না।”
“বিএনপি আবোল-তাবোল বকছে, সরকারের উন্নয়ন দেখে তাদের বুকে বিষব্যাথা ঝলছে। হিংসায় জ্বলছে বলে তারা এমন আবোল তাবোল বকছে,” বলেন কাদের।
নারীচালকদের নিয়ে এই অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, “নারী গাড়িচালকরা নিয়ম মেনে চলে, নারী গাড়িচালকদের দিয়ে রাস্তায় চলা নিরাপদ। তাই বেশি নারী গাড়িচালক নিয়োগ দ্রেয়া সম্ভব হলে সড়ক দুর্ঘটনার ঝুঁকি কমানো সম্ভব। বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি সরকারি গাড়িতেও নারী গাড়িচালক নিয়োগ দেয়া হবে।”
এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “কিছু মোটর সাইকেল চালক আছেন, যারা নিয়ম মানে না, যার কারণে সড়কে মৃত্যু ঝুঁকি বাড়িয়ে দেয়। কিছু রাজনৈতিক তরুণ নেতাকর্মী আছে, যারা নিয়ম মানতে চায় না।”
সড়কে উন্নয়নে মেট্রোরেলসহ নানা উদ্যোগ নেওয়ার বিষয়টি তুলে ধরে কাদের বলেন, “রাস্তায় ডিসিপ্লিন নেই, পরিবহনগুলো রাস্তায় চলাচলে ডিসিপ্লিন মানে না। রাস্তায় ডিসিপ্লিন না থাকলে প্রকল্পগুলোর উদ্দেশ্য কাজে আসবে না।”