প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘরে দৌলতপুরে সন্তোষ



নিজস্ব প্রতিনিধি

মুজিববর্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘর নির্মাণ নিয়ে সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন স্থানে অনিয়মের অভিযোগ ওঠে। এর পরিপ্রেক্ষিতে কুষ্টিয়ার দৌলতপুরেও এমন কোনো অভিযোগ আছে কিনা তা সরাসরি জানতে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) সেলিম শাহ নেওয়াজ এখানকার প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর পরিদর্শন করেছেন। শনিবার (১০ জুলাই) এডিএম দৌলতপুর উপজেলার পাঁচটি স্পটের মধ্যে তিনটি স্পটে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর পরিদর্শন করেন। জানা যায়,কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক সাইদুল ইসলামের নির্দেশে শনিবার বেলা ১১টার দিকে নবাগত অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) সেলিম শাহ নেওয়াজ সোনাইকুন্ডি, হোসেনাবাদ ও সরিষাডুলিতে নির্মাণ করা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহারের ঘরগুলো পর্যায়ক্রমে পরিদর্শন করেন। পরিদর্শনকালে তিনি এসব ঘরে বসবাস করে আসা নারী-পুরুষদের সঙ্গে কথা বলেন এবং বিভিন্ন বিষয়ে খোঁজখবর নেন। দেশের বিভিন্ন জেলায় প্রধানমন্ত্রীর ঘর নির্মাণে সম্প্রতি নানা অনিয়মের অভিযোগ ওঠায় কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক সাইদুল ইসলাম সরজমিনে পরিদর্শন করে প্রতিবেদন দেয়ার জন্য এডিএমকে দৌলতপুরে পাঠান। তবে তিনি এখানে কোনো অনিয়মের চিত্র পাননি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেয়া ঘরে কারো কোনো সমস্যা বা অভিযোগের কথা জানায়নি বসবাসকারীরা। তারা প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানায়। পরিদর্শন করে কোনো অসঙ্গতি চোখে না পড়ায় দৌলতপুর উপজেলায় প্রধানমন্ত্রীর উপহারের এসব ঘরের বিষয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেন এডিএম সেলিম শাহ নেওয়াজ। এ সময় দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শারমিন আক্তার, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) আব্দুল হান্নান ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা এডিএমের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন। দৌলতপুর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) আব্দুল হান্নান বলেন, সারাদেশে বিনামূল্যে গৃহহীনদের মাঝে জমি ও ঘর উপহার দেয়ার এই বৃহৎ প্রকল্পে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর আবেগ জড়িয়ে আছে। প্রকল্পটি খুবই স্পর্শকাতর। আমরা সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করে অত্যন্ত গুরুত্ব দিয়ে দৌলতপুর উপজেলায় এসব ঘর নির্মাণ করেছি। এখানে কোনো ধরনের অনিয়মের প্রশ্ন তোলার সুযোগ রাখা হয়নি।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *