বিপ্লবী বাঘা যতীন ভাস্কর্য ভাঙচুর মামলার তিন আসামির জামিন না মঞ্জুর



নিজস্ব প্রতিনিধি

বিপ্লবী বাঘা যতীন ভাস্কর্য ভাঙচুর মামলার তিন আসামির জামিন না মঞ্জুর করেছেন কুষ্টিয়া জেলা জজ আদালত। আসামিরা হলেন, কুমারখালী উপজেলার কয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি আনিসুর রহমান, দুই কর্মী সবুজ হোসেন এবং হৃদয় আহমেদ। এরা কয়া গ্রামের বাসিন্দা। গতকাল রবিবার দুপুর ১টার দিকে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক শেখ আবু তাহের ভার্চুয়াল আদালতে তাদের জামিন না মঞ্জুর করেন। মামলায় সরকার পক্ষে পিপি অনুপ কুমার নন্দী এবং আসামী পক্ষে সাইদুজ্জামান রানা শুনানিতে অংশ নেন। বিচারক দুই পক্ষে যুক্তি শুনে আসামিদের জামিন না মঞ্জুর করেন। গত বছরের ১৭ ডিসেম্বর রাতে কয়া মহাবিদ্যালয়ের সামনে স্থাপিত বিপ্লবী বাঘা যতীনের ভাষ্কর্ষ শক্ত বস্তু দিয়ে আঘাত করে দুর্বৃত্তরা ক্ষতিগ্রস্ত করে। পরদিন কলেজ অধ্যক্ষ হারুন অর রশীদ অজ্ঞাত আসামিদের নামে মামলা করেন। পুলিশ ১৮ ডিসেম্বর রাতে কয়া থেকে ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি আনিসুর রহমান, সবুজ হোসেন এবং হৃদয় আহমেদকে গ্রেফতার করে। ১৯ ডিসেম্বর পুলিশ তিন আসামির জন্য ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। ২০ ডিসেম্বর কুষ্টিয়া আদালতে ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর হয়। সেসময়ও জামিন আবেদন করা হয়েছিল। এদিকে গত ২৮ মার্চ আরেক দফা নি¤œ আদালতে জামিন প্রত্যাখ্যাত হয়। এরপরই তারা জেলা জজ আদালতে জামিন আবেদন করেন। তারই প্রেক্ষিতে আজ ১৮ এপ্রিল শুনানি হলো।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *