মায়ের একটা শরীরই হলো তার সন্তানঃ ডিসি সাইদুল ইসলাম




নিজস্ব প্রতিবেদক

কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম বলেছেন, পৃথিবীতে একজন মানুষের প্রতি অন্য মানুষের দয়া সহানুভূতির চেয়েও যার ভালোবাসা বেশি তিনিই হলেন মা। শত ত্যাগ ও দুঃখ-কষ্ট সহ্য করে মা বড় করে তোলেন সন্তানকে। নিজে না খেয়ে সন্তানকে খেতে দেন। মায়ের স্মৃতি বহন করেই সন্তানের বেঁচে থাকা, মায়ের একটা শরীরই হলো তার সন্তান। গতকাল রবিবার দুপুরে কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসনের সম্মেলন কক্ষে বিশ্ব মা দিবস উপলক্ষ্যে অসহায় মায়েদের মধ্যে খাদ্যসামগ্রী, নগদ টাকা ও শাড়ী বিতরণকালে তিনি একথা বলেন। পৃথিবীর সকল মায়েরা যেন ভালো থাকে উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, নিজে শত কষ্ট সহ্য করলেও সন্তানের সামান্য কষ্ট মা সহ্য করতে পারেন না। সন্তানের প্রথম এবং সবচেয়ে বড় শিক্ষক মা। একজন মা সন্তানকে সুশিক্ষায় শিক্ষিত করে গড়ে তুলতে, নিজেকে তীলে তীলে বিসর্জন দেন। তাই মা দিবস বলে কোন কিছুই নেই। প্রতিটি দিনই মাকে ভালোবাসতে হবে। জেলা প্রশাসন ও জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসকে (রাজস্ব) ওবায়দুর রহমান এর সভাপতিত্বে এসময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) শারমিন আক্তার, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার তবিবর রহমান, মহিলা বিষয়ক অধিদফতরের উপ-পরিচালক নূরে সফুরা ফেরদৌস, সদর উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মর্জিনা খাতুন সহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *