মে মাসেই আসতে পারে ৪০ লাখ টিকা



আলো ডেস্ক

মে মাসেই আসছে রাশিয়ার টিকা স্পুতনিক-ভি। আপাতত ৪০ লাখ ডোজ আসার সম্ভাবনা আছে বলে মঙ্গলবার দুপুরে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. মাহবুবুর রহমান। মো. মাহবুবুর রহমান জানান, ‘স্পুতনিক-ভি ছাড়াও চীনের সিনোফার্মের (চায়না ন্যাশনাল ফার্মাসিউটিক্যাল গ্রুপ) বিষয়েও কাজ করছি আমরা। যে ভ্যাকসিন দেশের জন্য প্রয়োজন, বিভিন্ন উৎস থেকে সেটি পাওয়ার চেষ্টা করছি।’ এর আগে মঙ্গলবারই ঔষধ প্রশাসন অধিদফতরের এক সভায় দেশে রাশিয়ার টিকা স্পুতনিক-ভির জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের গঠিত জরুরি জনস্বাস্থ্য ক্ষেত্রের ওষুধ, পরীক্ষামূলক ওষুধ, টিকা ও মেডিকেল সরঞ্জামবিষয়ক কমিটি এ অনুমোদন দিয়েছে। সরকারি নথিতেও উল্লেখ করা হয়েছিল, কিনতে চাইলে রাশিয়া বাংলাদেশকে আগামী মাস, অর্থাৎ মে থেকেই টিকা দিতে পারবে।
ঔষধ প্রশাসনের স্পুতনিক-ভি টিকার বিষয়ে সিদ্ধান্তের পর বাংলাদেশে অনুমোদন পাওয়া টিকার সংখ্যা দাঁড়াল দুটি। এর আগে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের গঠিত জরুরি জনস্বাস্থ্য ক্ষেত্রের ওষুধ, পরীক্ষামূলক ওষুধ, টিকা ও মেডিকেল সরঞ্জামবিষয়ক কমিটি অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছিল। দেশের শীর্ষস্থানীয় জনস্বাস্থ্যবিদ, টিকা বিশেষজ্ঞ, ওষুধবিজ্ঞানী ও রোগতত্ত্ববিদেরা এই কমিটির সদস্য।
দেশে ভারত থেকে টিকা আসা অনিশ্চয়তায় পড়ায় গণটিকাদান কর্মসূচিতে ছেদ পড়েছে। গত সোমবার থেকে প্রথম ডোজের টিকা দেয়া বন্ধ হয়ে যায়। প্রথম ডোজ দেওয়ার পর দ্বিতীয় ডোজ দেয়ার অপেক্ষায় থাকা ব্যক্তিদের মধ্যে ১৩ লাখ মানুষকে টিকা দেওয়ার জন্য মজুত সরকারের হাতে নেই।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *