মোংলা বন্দর চ্যানেলের সিগনাল বয়া তুলতে গিয়ে ৪ ডুবুড়ী আহত



মোংলা প্রতিনিধি

মোংলা বন্দরের চ্যানেল থেকে জাহাজের সিগনাল বয়া তুলতে গিয়ে ডুবরি দলের ৪ সদস্য গুরুত্বর আহত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার দুপুরে পশুর নদীতে বন্দর চ্যানেলের ৬নং বয়া উঠাতে গিয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে দুই জনের অবস্থা আশংঙ্কা জনক। উন্নত চিকৎসার জন্য মোংলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ডুবুড়ি দলের সদস্য মনির হোসেন বলেন, মোংলা বন্দরের পশুর চ্যানেলে ইনার বার ড্রেজিং প্রকল্পের কাজ চলমান, তাই নদীতে জাহাজের সিগনাল ৬নং বয়াটি চ্যানেলের মাঝ খানে থাকায় এটিকে উঠানোর জন্য ৯ সদস্যের ডুবুড়ীদল নিয়োগ করে বন্দর কর্তৃপক্ষ। শুক্রবার সকাল থেকেই বয়াটি উঠানোর চেষ্টা করে তারা। এসময় বন্দরের উদ্ধারকারী বি এল বি মালঞ্চ জাহাজে থাকা ওয়ার রোপ (রশি) লাগিয়ে বয়াটি উত্তোলনের চেষ্টাকালে ওয়ার রোপ ছিড়ে তাদের গায়ে প্রচন্ড আঘাত লাগে। তবে ডুবুড়ী দলেন ৯জন সদস্যের মধ্যে ৪জনই গুরুতর আহত হয়। তাদেরকে উদ্ধার করে প্রথমে মোংলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। আহতরা হলো, মোঃ জাহিদ, বাবুল, মতলেব ও শাহিন। এদের মধ্যে জাহিদ ও বাবুলের অবস্থা আশঙ্কা জনক। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার মৌশুমী মৌ জানান, ৪জনের মধ্যে দুই জনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে এবং বাকি দুই জনের অবস্থা খারাপ দেখে উন্নত চিকিৎসার জন্য দ্রুত খুলনা মেডিকেলে পাঠানো হয়েছে। মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের হারবার মাষ্টার কমান্ডার শেখ ফখর উদ্দিন বন্দর চেয়ারম্যানের বরাত দিয়ে বলেন, বন্দরের একটি সিগনাল বয়া চ্যানেলের মাঝে থাকায় এটিকে তুলতে মালঞ্চ জাহাজ সেখানে গিয়েছে তবে দৈনিক চুক্তিতে ডুবুড়ী দলের লোক নিয়োগ করা হয়েছে। মালঞ্চ জাহাজের রশি ছিড়ে কয়েকজনের আহতের খবর পেয়েছিম, তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনায় পাঠানো হয়েছে। এছাড়া বন্দর চেয়ারম্যান খুলনা মেডিকেলে আহত ব্যাক্তিদের খোজ খবর নিচ্ছেন। তাদের চিকিৎসার জন্য সকল ব্যাবস্থাই বন্দরের পক্ষ থেকে নেয়া হবে বলে জানায় হারবার মাষ্টার।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *