শিক্ষার্থীকে থাপ্পড় মারা সেই সহকারী প্রক্টরকে অব্যাহতি


ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘আমকান্ড’

ইবি প্রতিনিধি

কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে গাছ থেকে আম পাড়া নিয়ে এক শিক্ষার্থীকে থাপ্পড় মারার ঘটনায় সহকারী প্রক্টর আরিফুল ইসলামকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) মু.আতাউর রহমান গদকাল মঙ্গলবার বেলা সাড়ে তিনটায় এ তথ্য নিশ্চিত করেন। গত শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাববিজ্ঞান ও তথ্যপদ্ধতি বিভাগের স্নাতকোত্তরের শিক্ষার্থী হাসান আলী তাঁর স্ত্রীকে (তিনিও একই বিভাগের ছাত্রী) নিয়ে ক্যাম্পাসে ঘুরতে যান। হলের সামনের গাছ থেকে কয়েকটি আম পাড়ার সময় সহকারী প্রক্টর আরিফুল ইসলাম উপস্থিত হন। তাঁর সঙ্গে ওই শিক্ষার্থীর কথা-কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে প্রক্টর ওই শিক্ষার্থীকে সজোরে থাপ্পড় দেন। পরে তাঁকে ও তাঁর স্ত্রীসহ এক শিশুকে আবাসিক হলে আটক করে রাখেন তিনি। প্রায় আধা ঘণ্টা পর তাঁদের ছেড়ে দেওয়া হয়। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী ওই দিন সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর বরাবর লিখিত অভিযোগ দেন। অভিযোগপত্রে সহকারী প্রক্টর আরিফ কর্তৃক শারীরিক ও মানসিকভাবে লাঞ্ছনার বিষয়টি তুলে ধরে ঘটনার সুষ্ঠুু বিচারের দাবি জানান তিনি। এদিকে এ ঘটনা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে প্রতিবাদের ঝড় ওঠে। সাধারণ শিক্ষার্থীরা ঘটনার প্রতিবাদে প্রতীকী হিসেবে ক্যাম্পাসে দিনব্যাপী আমপাড়া কর্মসূচি পালন করেন। অভিযোগের ব্যাপারে জানতে চাইলে সহকারী প্রক্টর আরিফুল ইসলাম জানান, ঘটনার লেভেল কোন পর্যায়ে গেলে একজন শিক্ষক এই কাজটা (থাপ্পড়) করতে পারেন। বলতে গেলে ধৈর্যের সীমা অতিক্রম হয়েছিল, এতটুকুই বলব। আমি আমার দায়িত্ব ও কর্তব্যের জায়গা থেকে সঠিক কাজটাই করেছি বলে মনে করছি। বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) মু আতাউর রহমান বলেন, আরিফুল ইসলামকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *