৭৫ লাখ পর্যন্ত স্বল্প সুদে ঋণ পাবেন ক্ষুদ্র উদ্যোক্তারা



আলো ডেস্ক

করোনার ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের উদ্যোক্তারা ১ লাখ থেকে সর্বোচ্চ ৭৫ লাখ টাকা পর্যন্ত ঋণ পাবেন। এই ঋণের সুদের হার হবে ৪ শতাংশ। দুই বছরে ২৪ কিস্তিতে এই ঋণ পরিশোধ করতে পারবেন ক্ষুদ্র উদ্যোক্তারা। সরকারের দ্বিতীয় দফায় ঘোষিত প্রণোদনা প্যাকেজের আওতায় এই ঋণ দেয়া হচ্ছে। সরকারের দেওয়া বিধিনিষেধ উঠে গেলেই ঋণ বিতরণের প্রক্রিয়া শুরু হবে বলে জানিয়েছে এসএমই ফাউন্ডেশন।
এসএমই ফাউন্ডেশনের তথ্য অনুযায়ী, দ্বিতীয় দফায় ঘোষিত প্রণোদনা প্যাকেজে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের জন্য মোট তিন হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ দেয় সরকার, যার মধ্যে এসএমই ফাউন্ডেশনকে দেয়া হয় ৩০০ কোটি টাকা। এই ৩০০ কোটি টাকার মধ্যে চলতি অর্থবছরে ১০০ কোটি টাকা খরচের বাধ্যবাধকতা রয়েছে। বাকি ২০০ কোটি টাকা ২০২১-২২ অর্থবছরে খরচ করতে হবে।
ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের মধ্যে ১০০ কোটি টাকা ঋণ বিতরণের জন্য ১১টি ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বাছাই করেছে এসএমই ফাউন্ডেশন, যার মধ্যে ৫টি ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তির কাজ শেষ। এর মধ্যে ব্র্যাক ব্যাংক ঋণ বিতরণ করবে ৩০ কোটি টাকা। আইডিএলসি বিতরণ করবে ৩০ কোটি টাকা। এ ছাড়া মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক ২০ কোটি টাকা, প্রিমিয়ার ব্যাংক ১০ কোটি টাকা এবং বেসিক ব্যাংক ঋণ বিতরণ করবে ৫ কোটি টাকা। বাকি ছয়টি ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে শিগগিরই চুক্তির কাজ শেষ করবে এসএমই ফাউন্ডেশন।
এসএমই ফাউন্ডেশনের চেয়ারপারসন মাসুদুর রহমান বলেন, ‘এ বছর জুনের মধ্যে আমাদের ১০০ কোটি টাকা বিতরণ করতে হবে। সে লক্ষ্যে আমরা কাজ করছি। প্রান্তিক উদ্যোক্তা, নারী উদ্যোক্তা, নতুন ও গ্রামীণ উদ্যোক্তাদের এই ঋণ দেওয়া হবে। এসএমই ফাউন্ডেশন যাদের নাম সুপারিশ করবে, তারাই এই ঋণ পাবে।’ এখানে অনিয়মের কোনো সুযোগ নেই বলে জানান তিনি।
যেসব ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা এসএমই ফাউন্ডেশন থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে বিভিন্ন কাজে সম্পৃক্ত, তারাই এই ঋণ পাবেন। জানা গেছে, এই সংখ্যা প্রায় ৪০ হাজার। উদ্যোক্তাদের ঢাকায় আসতে হবে না ঋণের জন্য। নিজ জেলায় সংশ্লিষ্ট ব্যাংক থেকে ঋণের টাকা তুলতে পারবেন। এই ঋণ নিতে জামানতের প্রয়োজন হবে না। এসএমই ফাউন্ডেশনের সুপারিশে এই ঋণ মিলবে। জুনের মধ্যেই ১০০ কোটি টাকা বিতরণকাজ শেষ করতে হবে এসএমই ফাউন্ডেশনকে।
জানা গেছে, ১০০ কোটি টাকার মধ্যে ৩০ শতাংশ নারী উদ্যোক্তার মধ্যে বিতরণ করতে হবে। সব ব্যাংকে এই নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। অর্থ মন্ত্রণালয়ের নীতিমালা অনুযায়ী, প্রান্তিক উদ্যোক্তা, নারী উদ্যোক্তা, নতুন উদ্যোক্তা এবং গ্রামীণ উদ্যোক্তাদের এই ঋণ দেওয়া হবে। সরকারঘোষিত প্রথম দফার প্রণোদনা প্যাকেজে ব্যাংকে গিয়ে ব্যবসায়ীদের ঋণ পেতে যে হয়রানি ও ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে, এ ক্ষেত্রে তা হবে না বলে আশ্বস্ত করেছে এসএমই ফাউন্ডেশন।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *